1. ph.jayed@gmail.com : akothadesk42 :
  2. admin@amaderkatha24.com : kamader42 :
শনিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২১, ০৬:২৪ অপরাহ্ন

সরকারের সমালোচনা করায় ৩ সাংবাদিকের জেল

আমাদের কথা ডেস্ক
  • আপডেট : বুধবার, ৬ জানুয়ারী, ২০২১

নিউজ ডেস্ক: সরকারের সমালোচনা করায় ভিয়েতনামের তিন সাংবাদিকের ১১ থেকে ১৫ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন দেশটির একটি আদালত। রাষ্ট্রবিরোধী প্রচারণা চালানোর অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে তাঁদের। খবর রয়টার্সের।

ভিয়েতনামের জননিরাপত্তাবিষয়ক মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, কারাদণ্ড পাওয়া এ সাংবাদিকেরা হলেন ফাম চি ডুং, গায়েন টুং হুই ও লি হু মিন টুয়ান। হো চি মিন শহরের আদালতে গতকাল মঙ্গলবার মাত্র এক দিনের বিচারে তাঁদের ওই সাজা দেওয়া হয়েছে। মন্ত্রণালয় বলেছে, তাঁরা রাষ্ট্রবিরোধী প্রচারণার লক্ষ্য নিয়ে খবর তৈরি করে তা ছড়িয়ে দিয়েছেন।

ডুংকে ১৫ বছরের এবং হুই ও টুয়ানকে ১১ বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। ডুং ২০১৪ সালে ‘ইন্ডিপেনডেন্ট জার্নালিস্টস অ্যাসোসিয়েশন অব ভিয়েতনাম’ নামে একটি সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেন। পুলিশ বলেছে, তিনি সরকার পরিবর্তন করার চেষ্টা করছিলেন।

মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল ওই ঘটনাকে স্বাধীন গণমাধ্যমের প্রতি হ্যানয়ের অবজ্ঞাই তুলে ধরেছে বলে মন্তব্য করেছে। আরেক তিন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে অভিযোগকে ভুয়া বলে আখ্যায়িত করেছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ।
গুয়েন ফু ট্রংয়ের নেতৃত্বে ভিয়েতনামের ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টি দেশটিতে ভিন্নমতাবলম্বীদের ওপর সম্প্রতি দমনপীড়ন জোরদার করেছে।

ওয়াশিংটনভিত্তিক ‘রেডিও ফ্রি এশিয়া’ (আরএফএ) বলেছে, হুই এ চ্যানেলে মন্তব্য প্রতিবেদন তৈরি করতেন। তাঁকে দোষী সাব্যস্ত করার ঘটনার নিন্দা জানিয়েছে চ্যানেলটি। চ্যানেলের প্রেসিডেন্ট স্টিফেন ইয়েটস এক বিবৃতিতে বলেছেন, হুই ও অপর দুই স্বাধীন সাংবাদিককে যে কঠোর সাজা দেওয়া হয়েছে, তা মৌলিক স্বাধীনতা ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতার ওপর আঘাত, যে স্বাধীনতা ভিয়েতনামের সংবিধানে দেওয়া হয়েছে।

আরএফএ বলেছে, তাদের চ্যানেলের আরও দুজন ভিয়েতনামি প্রদায়ক ব্লগার ট্রুং ডুই হ্যাট ও ভিডিওগ্রাফার গায়েন ভ্যান হোয়াকেও কারাগারে পাঠিয়েছে সরকার। ট্রুংকে গত মার্চে ১০ বছরের ও গায়েনকে ২০১৭ সালের নভেম্বরে ৭ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

হ্যানয়ের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক গড়ে তোলা যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর সর্বশেষ তিন সাংবাদিককে কারাদণ্ডাদেশ দেওয়ার ঘটনায় হতাশা প্রকাশ করেছে। এই দপ্তর বলেছে, এই সাজা ‘কঠোর’ ও ‘উদ্বেগজনক প্রবণতার’ সাম্প্রতিকতম উদাহরণ। দপ্তরের মুখপাত্র বলেন, ‘আমরা ভিয়েতনাম সরকারের প্রতি তাদের সংবিধানের মানবাধিকারসংক্রান্ত ধারা এবং আন্তর্জাতিক আইনের বাধ্যবাধকতা ও প্রতিশ্রুতির সঙ্গে সংগতিপূর্ণ কর্মকাণ্ড নিশ্চিত করার আহ্বান জানাই।’

এদিকে মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল ওই ঘটনাকে স্বাধীন গণমাধ্যমের প্রতি হ্যানয়ের অবজ্ঞাই তুলে ধরেছে বলে মন্তব্য করেছে। আরেক তিন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে অভিযোগকে ভুয়া বলে আখ্যায়িত করেছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই জাতীয় আরো খবর
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Maintained By Ka Kha IT