1. ph.jayed@gmail.com : akothadesk42 :
  2. admin@amaderkatha24.com : kamader42 :
সোমবার, ১৭ মে ২০২১, ১২:২২ অপরাহ্ন

যে কারণে মালয়েশিয়ায় নিষিদ্ধ হলো রায়হান কবির

আমাদের কথা ডেস্ক
  • আপডেট : শনিবার, ২৫ জুলাই, ২০২০

নিউজ ডেস্ক: কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আল-জাজিরায় সাক্ষাৎকার দেয়া মো. রায়হান কবিরকে দেশে ফেরত পাঠানোর ঘোষণা দিয়েছে মালয়েশিয়া। একইসঙ্গে দেশটিতে তাকে কালো তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। ফলে তিনি আর কখনো মালয়েশিয়ায় ফিরতে পারবেন না। এর আগে শুক্রবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ খবর দিয়েছে মালয় মেইল।
খবরে বলা হয়, করোনা মহামারি চলাকালীন অবৈধ অভিবাসীদের সঙ্গে কর্তৃপক্ষের আচরণ নিয়ে আল-জাজিরায় কথা বলার পর মালয়েশিয়া সরকারের টার্গেটে পরিণত হন রায়হান কবির। তার বিষয়ে তথ্য পেতে বিবৃতিও দেয়া হয়। দেশটির অভিবাসন কর্তৃপক্ষ তাকে ধরতে দুই সপ্তাহ ধরে তল্লাশি চালায়। তাকে গ্রেপ্তারের পর দেশটি এখন তাকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

একইসঙ্গে রায়হান কবির যাতে আর কখনো মালয়েশিয়া ফিরে আসতে না পারেন সে জন্য তাকে কালো তালিকাভুক্ত করা হয়েছে।
এ নিয়ে একটি বিবৃতি প্রকাশ করেছে মালয়েশিয়ার অভিবাসন কর্তৃপক্ষ। এতে সংস্থাটির মহাপরিচালক দাতুক খায়রুল দাউদ বলেন, রায়হান কবিরকে গ্রেপ্তারে অবদান রাখা সকল কর্মকর্তাদের তাদের প্রচেষ্টার জন্য অভিনন্দন জানাচ্ছি। এখন এই বাংলাদেশিকে মালয়েশিয়া থেকে নির্বাসিত করা হবে এবং কালো তালিকাভুক্ত করা হবে যাতে সে আর এদেশে প্রবেশ করতে না পারে।

করোনা ভাইরাস মহামারি চলাকালীন ‘লকড আপ ইন মালয়েশিয়া’স লকডাউন’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে আল-জাজিরা। সংবাদমাধ্যমটির ‘১০১ ইস্ট’ অনুষ্ঠানে ২৫ মিনিট ৫০ সেকেন্ডের ওই প্রতিবেদন প্রচারিত হয়। এতে লকডাউনে গরীব, দুস্থ, সহায়তার আশায় থাকা অবৈধ অভিবাসীদের সঙ্গে মালয়েশিয়ান পুলিশের আচরণের সমালোচনা করেন রায়হান। এরপরই সরকারের টার্গেটে পরিণত হন তিনি। ওই প্রতিবেদনে রায়হান বলেন, পুলিশ তাদের ধোঁকা দিচ্ছে।

খাবার, পানি, সহায়তা দেয়া হবে বলে তাদের ডেকে নিয়ে গেছে। তাদের ধোকা দিয়ে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। এসময় তিনি দাবি করেন, অবৈধ অভিবাসী হয়ে মালয়েশিয়ায় থাকা কোনো অপরাধ নয়। কিন্তু এ জন্য তার এক বন্ধুকেও গ্রেপ্তার করেছে বলে জানান রায়হান। তিনি বলেন, আমি থানায় গিয়েছি, ইমিগ্রেশনে গিয়েছি। তাদের কাছে অনুরোধ করেছি যাতে একটা বার অন্তত আমার বন্ধুর সাথে দেখা করতে দেয়। কিন্তু তারা শোনেননি।
এই ঘটনার প্রেক্ষিতেই তার ওয়ার্ক পারমিট বাতিল করে দেয় মালয়েশিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। মালয় মেইল জানিয়েছে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেক মালয়েশিয়ান রায়হান কবিরের ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। ঘটনার এক পর্যায়ে আল-জাজিরার বেশ কয়েকজন কর্মীকেও ডেকে এনে হেনস্থার অভিযোগ উঠেছে মালয়েশিয়ার কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই জাতীয় আরো খবর
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Maintained By Ka Kha IT