1. ph.jayed@gmail.com : akothadesk42 :
  2. admin@amaderkatha24.com : kamader42 :
বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ১০:০৮ অপরাহ্ন

ফ্রান্সে মিউনিসিপ্যাল নির্বাচন নিয়ে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কমিশনার পদপ্রার্থীদের মত বিনিময় সভা

আমাদের কথা ডেস্ক
  • আপডেট : বুধবার, ১১ মার্চ, ২০২০

নিউজ ডেস্ক: আসন্ন মিউনিসিপ্যাল নির্বাচন ২০২০-এ অংশগ্রহণকারী বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত বিভিন্ন কমিশনার পদপ্রার্থীদের নিয়ে মত বিনিময় এবং পরিচিতিকরণের লক্ষ্যে ইপিএস বাংলা কমিউনিটি ইন ফ্রান্স এর আয়োজনে আজ বিকাল ৬ টায় উদীচী ফ্রান্স সংসদ এর অনুশীলন কেন্দ্রে একটি পরিচয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন ইপিএস বাংলা কমিউনিটি ইন ফ্রান্সের সভাপতি জনাব এলান খান চৌধুরী এবং সভা পরিচালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল ডি আর লেনিন। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনায় ছিলেন ফাতেমা-তুজ-জোহরা এবং মাসুদ আল আজাদ।

অংশগ্রহণকারী প্রার্থীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ওভারভিলে থেকে কমিশনার পদপ্রার্থী কিরণময় মন্ডল, প্যারিস ১০ থেকে কমিশনার পদপ্রার্থী জনাব এ এ এমডি ফেরদৌস নয়ন, Vigneux sur Seine থেকে কমিশনার পদপ্রার্থী নয়ন এন কে, Argenteuil municipalité কমিশনার পদপ্রার্থী আকাশ হেলাল, Ivry মুনিচিপালিতé থেকে কমিশনার পদপ্রার্থী জুবাইদ আহমেদ, Aulnay-sous-Bois Municipalité থেকে আহমেদ মুনিম জুনেদ এবং Sevran municipalité থেকে কমিশনার পদপ্রার্থী রেজাউল করিম রেজা। সভায় উপস্থিত ছিলেন উদীচী ফ্রান্স সংসদের সাবেক সাধারন সম্পাদক আহমেদ আলী দুলাল, উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য সলিমুল্লাহ সিদ্দিকী রানা, সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন হাওলাদার, সহ সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম রায়হান। বাংলাদেশ কমিউনিটি ইন ফ্রান্স বিসিএফ এর পক্ষ থেকে উক্ত সভায় উপস্থিত ছিলেন বি সি এফ এক্সিকিউটিভ কাউন্সিল মেম্বার তুহিনা আক্তার রিমা ও নাজমুল কবির, সাংবাদিকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এমসি রুমেল, মোসাদ্দেক হোসেন সাইফুল, রাসেল আহমেদ প্রমুখ।

এছাড়াও প্যারিসে অবস্থিত বিভিন্ন কমিউনিটি, সাংস্কৃতিক সংগঠনের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। সবার প্রথমেই ইপিএস বাংলা কমিউনিটি এর কাউন্সিল সদস্যরা আমন্ত্রিত অতিথিদেরকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন। ইপিএস বাংলা কমিউনিটির পক্ষ থেকে তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা এবং ধন্যবাদ জ্ঞাপন করা হয় ফ্রান্সের মূল ধারার রাজনীতি তাদের অংশগ্রহণের সাহসিকতার জন্য। তাদের সভা অনুষ্ঠানের রূপরেখা উপর একটি বক্তব্য রাখা হয়। বক্তব্যে সদস্যদের ফ্রান্সের মূল ধারার রাজনীতিতে তাদের অন্তর্ভুক্তির ইতিহাস, তাদের নির্বাচনী ইশতেহার, বাংলাদেশী কমিউনিটির প্রতি তাদের প্রত্যাশা এবং প্রতিশ্রুতি, এবং বর্তমান প্রজন্মের প্রতি তাদের অনুপ্রেরণামূলক বক্তব্য রাখার জন্য আহ্বান করা হয়।

এবং বিষয়ের উপর বক্তব্য দিতে গিয়ে ইপিএস কমিউনিটির এক্সিকিউটিভ সদস্য ও কাউন্সিলর পদপ্রার্থী জুনেদ আহমেদ বলেন এই শুরুটা আমাদের কমিটির জন্য একটি মাইলফলক। তিনি বাংলাদেশি কমিউনিটির কাছে উনার প্রত্যাশা এবং প্রতিশ্রুতি তুলে ধরেন। কমিশনার পদপ্রার্থী রেজাউল করিম রেজা তার সুদীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরেন এবং একইসাথে তিনি বাংলাদেশী কমিউনিটির সাথে একযোগে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। বিশিষ্ট ক্রিকেট তারকা জুবায়ের আহমেদ তার বক্তব্যে রাজনীতিতে বাংলাদেশী মানুষের অন্তর্ভুক্তির গুরুত্ব উনার নিজের অভিজ্ঞতার ভিত্তিতে তুলে ধরেন এর সাথে সাথে তিনি রাজনীতিকে অন্যায়ের প্রতিবাদের ভাষা বলে উল্লেখ করেন । পদপ্রার্থী নয়ন কিয়াং বলেন আপনারা কোন কারনে ( অসুস্থ) ভোট দিতে না পারলে ও প্রক্সির মাধ্যমে ভোট দিতে পারবেন, কমিউনিটির প্রয়োজনে সব সময় লাইভে আসেন, তিনি বিসিএফ কমিউনিটির সাথে জড়িত থাকার পাশাপাশি নিজের তৈরি করা আরেকটি কমিউনিটি পরিচালনা করেন যেখানে ছোট শিশুদের অধিকার নিয়ে সরব। পদপ্রার্থী আকাশ হেলাল তার সাবলীল এবং প্রাঞ্জল বক্তব্যে তিনি বর্তমান প্রজন্মকে সাহসিকতার সাথে মূল ধারার রাজনীতিতে অংশগ্রহণের জন্য উদাত্ত আহ্বান জানান এবং এর গুরুত্বের বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত আকারে সবার সামনে তুলে ধরেন।

তিনি এ ধরনের কর্মকাণ্ড কমিউনিটির জন্য মাইলফলক হিসেবে মনে করেন। বক্তব্যে কমিশনার পদপ্রার্থী এ এ এমডি ফেরদৌস নয়ন রাজনীতিতে উনার অন্তর্ভুক্তি এর কারণ, রাজনৈতিক নির্বাচনী ইশতেহার সবার সামনে তুলে ধরেন। তিনি বাংলাদেশী কমিউনিটির মানুষদেরকে বেশি করে তাদের সামাজিক গণমাধ্যমে প্রচারের মাধ্যমে সহযোগিতার জন্য আহ্বান জানান। সবশেষে বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ এবং সাংস্কৃতিক কর্মী কিরণময় মন্ডল তার বক্তব্যে ফরাসি সমাজে বাংলাদেশীদের ইন্ট্রিগেশন এবং নিজস্ব ভাষা সংস্কৃতি এবং জাতীয় পরিচয় এর ভিত্তিতে মর্যাদার সাথে ফ্রান্সের সমাজের অন্তর্ভুক্তির গুরুত্ব তার বিশ্লেষণমূলক বক্তব্যের মাধ্যমে প্রাঞ্জল ভাষায় সবার সামনে তুলে ধরেন। এরই সাথে সাথে তিনি সকল সদস্য যারা সাহসিকতার সাথে ফরাসি রাজনীতিতে পদার্পণ করেছেন তাদেরকে শুভাশিস ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

সবশেষে অতিথিবৃন্দ ইপিএস বাংলা কর্তৃক আয়োজিত একটি সুশৃঙ্খল এবং গঠনমূলক অনুষ্ঠান পরিচালনার জন্য ইপিএস বাংলার সকল সদস্যদের কে আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। আগামীতে বাংলাদেশী কমিউনিটির ইস্যুগুলোতে সবাই একযোগে সম্মিলিতভাবে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করে অনুষ্ঠানের সমাপনী করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই জাতীয় আরো খবর
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Maintained By Ka Kha IT