1. ph.jayed@gmail.com : akothadesk42 :
  2. admin@amaderkatha24.com : kamader42 :
বৃহস্পতিবার, ১১ এপ্রিল ২০২৪, ০১:৫৯ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ঢাকা-প্যারিস সরাসরি বিমান ফ্লাইট চালুর দাবী ফ্রান্সের সাংবাদিকদের আমাদের কথা‘র ঈদ সামগ্রী বিতরণ আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের রজত জয়ন্তী পালন করবে ইউনেস্কোঃ নির্বাহী পর্ষদের সিদ্ধান্ত কুলাউড়ায় ম্যাজিস্ট্রেট দেখে ১০০ টাকার পেঁয়াজ ৫০ টাকায় বিক্রি দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল গ্রেপ্তার কুলাউড়ায় নতুন ইউএনও হিসেবে যোগদান করলেন মহিউদ্দিন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী উদযাপন কুলাউড়ায় কুলাউড়া উপজেলা নির্বাচন ৮ মে ফ্রান্সে মাদারীপুর জেলা অ্যাসোসিয়েশনের নতুন কমিটি ঘোষণা ফ্রান্সের গ্লোবাল জালালাবাদ এসোসিয়েশনের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

গুজরাটে প্রবাসী বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের অমর একুশে পালন

আমাদের কথা ডেস্ক
  • আপডেট : রবিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২০

নিউজ ডেস্ক: ভারতের গুজরাট প্রদেশে পালিত হয়েছে মহান ভাষা শহীদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২০২০। প্রতি বছরের মতো এবারও যথাযথ মর্যাদায় দিবসটি পালনের উদ্যোগ নেয় গুজরাটে অধ্যয়নরত বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের সংগঠন ‘বাংলাদেশ স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন, গুজরাট’ (বিএসএজি)।

গুজরাটের প্রধান শহর ও বাণিজ্যিক নগরী আহমেদাবাদের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত গুজরাট বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অস্থায়ী শহীদ মিনার ও বেদি নির্মাণ করে শিক্ষার্থীরা মহান ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি জানান।

এ আয়োজনে বাংলাদেশিদের পাশাপাশি অন্যান্য দেশের শিক্ষার্থীরাও অংশগ্রহণ করেন প্রতি বছরই। এ আয়োজনের অন্যতম বিশেষত্ব হলো, শুধু বাংলা নয়, পৃথিবীর বিভিন্ন ভাষার বর্ণ বা বর্ণমালায় সজ্জিত হয় অস্থায়ী শহীদ মিনার।

বিএসএজির সভাপতি ও গুজরাট প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি শেষবর্ষের শিক্ষার্থী অপু সিংহ পলাশ জানান, ‘বিদেশে থাকলেও আমরা আসলে প্রতিনিয়ত দেশকে হৃদয়ে অনুভব করি। আমরা আমাদের সীমিত সুযোগে যতভাবে সম্ভব দেশকে পুরো বিশ্বের সামনে উপস্থাপন করতে চাই। আর এজন্য শ্রেষ্ঠ উপায় হলো আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসটিকে যথাযথভাবে পালন করা। ১৯৫২ সালে যদি শিক্ষার্থীরা ভাষার জন্য জীবন দিতে পারেন, তাহলে বিদেশে দেশের মতো করে আয়োজন করার সুযোগ না থাকলেও সীমিত পরিসরে হলেও আমাদের দেশের গৌরবোজ্জ্বল এক অধ্যায়কে সবার মাঝে ছড়িয়ে দেওয়া শিক্ষার্থী হিসেবে আমাদের দায়িত্ব।’ তিনি আরও জানান যে, আহমেদাবাদের বাঙালি অ্যাসোসিয়েশনও তাদের সঙ্গে যুক্ত হয়ে এ দিবসটি পালন করে আসছে গত কয়েক বছর থেকে।

তাছাড়া সার্বজনীন উৎসবগুলোও পালন করে থাকে এই সংগঠন। ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে ঈদ, পূজায় একসঙ্গে উৎসবে সামিল হওয়ার চেষ্টা করে তারা। এমনি পিঠা উৎসবের আয়োজন করে বিদেশের মাটিতে বাংলার ঐতিহ্যকে টিকিয়ে রাখার প্রয়াস রাখে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই জাতীয় আরো খবর
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Maintained By Macrosys