1. ph.jayed@gmail.com : akothadesk42 :
  2. admin@amaderkatha24.com : kamader42 :
সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ১০:৫৪ অপরাহ্ন

করোনা ছড়িয়ে পড়ার আসল কারণ ‘মোবাইল ফোন’

আমাদের কথা ডেস্ক
  • আপডেট : মঙ্গলবার, ১৯ মে, ২০২০

নিউজ ডেস্ক: করোনাভাইরাস কয়েক ঘন্টা ধরে জীবিত থাকে এবং মোবাইল ফোনের মাধ্যমে এর পুনরুৎপাদন হতে পারে। এ কারণে দুবাইয়ের শীর্ষস্থানীয় এক পুলিশ কর্মকর্তা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি এড়াতে লোকজনকে তাদের মোবাইল ফোনগুলোকে জীবাণুমুক্ত করার আহ্বান জানিয়েছেন।

দুবাই পুলিশ এবং অস্ট্রেলিয়ার বন অ্যান্ড মারডোক বিশ্ববিদ্যালয় যৌথভাবে যে গবেষণামূলক কার্যক্রম চালাচ্ছে তার সমন্বয়কারী হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন আল গাফরি। ওই গবেষণায় দেখা গেছে, মাইক্রোফোন করোনভাইরাসসহ নানা অনুজীব বিস্তারের একটি উল্লেখযোগ্য মাধ্যম হিসাবে কাজ করে থাকে।

এ সম্পর্কে আল গাফরি বলেন, ‘আমরা ২৪ ঘণ্টাই মোবাইল ফোন সঙ্গে রাখি। আমাদের গবেষণায় দেখা গেছে, এর মাধ্যমে নানা প্রকার ব্যাকটেরিয়া ও ভাইরাসের বিস্তার ঘটছে। আপনি যখন ফোন ধরে ওই হাত দিয়ে আবার নিজের মুখ স্পর্শ করবেন, তখনই আপনার ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যাবে।’

‘কিছু গবেষণায় দেখা গেছে ভাইরাস বেশিক্ষণ টিকে থাকতে পারে না। কিন্তু আমাদের গবেষণা বলছে, অনুজীব কয়েক ঘণ্টা পর্যন্ত টিকে থাকতে পারে এবং মোবাইল ফোনের মাধ্যমে এরা পুনরুৎপাদিত হতে পারে।’

জার্নাল অব ট্রাভেল মেডিসিন এবং ইনফেকসাস ডিজিজে প্রকাশিত এই গবেষণায় আর দেখা যায়, মোবাইল ফোন ব্যবহারের সময় যে তাপ উৎপাদিত হয়, সেই উত্তাপে জীবাণুগুলিকে দীর্ঘকাল ধরে টিকে থাকতে এবং পুনরুৎপাদিত হতে পারে।

এ কারণে মোবাইল ফোনগুলোকে করোনা ছড়ানোর একটি অন্যতম মাধ্যম হিসাবে উল্লেখ করেছেন দুবাইয়ের ওই পুলিশ কর্মকর্তা।

মোবাইল ফোনের ব্যাপক বিস্তার সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘মোবাইল ফোনে আমরা এতবেশি অভ্যস্ত হয়ে গেছি যে, এটাকে আমাদের থার্ড হ্যান্ড বলা হয়ে থাকে। এটি সারাক্ষণ আমাদের হাতেই থাকে এবং আমরা এই যন্ত্রটির প্রতি অতিরিক্ত মাত্রায় আসক্ত হয়ে পড়েছি। আমরা তাদের আমাদের পকেটে রাখি। আমরা তাদের টয়লেটে নিয়ে যাই। এবং যখন আমরা মোবাইল ফোনে কথা বলি, আমরা তখন নিজেদের দেহে কিছু ভাইরাসও জমা করে নেই।’

তিনি মানব সমাজে করোনা বিস্তারের জন্য মোবাইল ফোনকে আসল অপরাধী হিসাবে আখ্যায়িত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘আমরা বিভিন্ন সম্প্রদায়ের সদস্য এবং স্বাস্থ্যসেবা কর্মীরা কীভাবে সবসময় তাদের সাথে মোবাইল ফোন বহন করে তা যদি আমরা লক্ষ্য করি, তবে আমরা বুঝতে পারবো বিশ্বে করোনাভাইরাস বিস্তারের আসল কালপ্রিট এই মোবাইল ফোন।’

আর এভাবে মোবাইল ফোন ব্যবহারের কারণে বারবার সাবান পানি দিয়ে হাত ধোয়ার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশণাটিও তেমন কাজে আসছে না। তার ভাষায়, লোকজন হাত ধোয়ার পর নিজেদের মোবাইল ধরছে। এর ফলে তাদের হাত ফের দূষিত হয়ে পড়ছে।

আর এ থেকে বেঁচে থাকার জন্য পুলিশ কর্মকর্তা আল গাফরির পরামর্শ হচ্ছে-হাত ধোয়ার পাশাপাশি নিজেদের মোবাইলগুলোকেও জীবাণুমুক্ত করতে হবে। নইলে মোবাইল স্পর্শ করার পর ওই হাত দিয়ে মুখ ও নাক স্পর্শ করলে করোনায় আক্রান্ত হওেয়ার সম্ভাবনা বাড়বে।

একই সঙ্গে তিনি অন্যের মোবাইল ফোন ব্যবহার না করারও পরামর্শ দিয়েছেন।

সূত্র: খালিজ টাইমস

নিউজটি শেয়ার করুন

এই জাতীয় আরো খবর
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Maintained By Ka Kha IT