1. ph.jayed@gmail.com : akothadesk42 :
  2. admin@amaderkatha24.com : kamader42 :
বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ০১:৫৬ পূর্বাহ্ন

ইউরোপে আওয়ামী লীগের অচলায়তন রাজনীতির থেকে মুক্তি বনাম অভিশাপগ্রস্থ অর্বাচীনদের উস্কানি

আমাদের কথা ডেস্ক
  • আপডেট : শনিবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৯

প্রাগৈতিহাসিক রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা রাজনীতি মোকাবেলা করেছেন তাঁদের নিজস্ব বুদ্ধিমত্তা, ধৈর্য ও দূরদর্শীতা দিয়ে। বংশ মর্যাদা আর প্রাচুর্য ছিল তাদের কাছে তুচ্ছ। আজকে গুজবকারীরা ও গণির মতো নির্বোধ রাজনীতিবিদেরা অহংকারে দলের নিবেদিত প্রাণ কর্মীদের ব্যক্তিগত দাস মনে করেন, যা আদৌ সমীচীন নয়। অচলায়তন রাজনীতির ব্যর্থতায় পর্যবসিত হয়ে ইউরোপে কোন কোন হাইব্রিড আই মিন বেওয়ারিশরা নেকড়ের মতো ফাঁকা বুলি আওড়াচ্ছে। আর পরীক্ষিত নেতাকর্মীদের সঙ্গে অসদাচরণ এবং বর্তমানে সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সফল সভাপতি, সাধারন সম্পাদক (এম নজরুল ইসলাম ও মুজিবর রহমানের) বিরোধীতা করে উস্কানি সহ মিথ্যা গুজব করতেও দ্বিধা করেনা। নিজের ব্যর্থতা অযোগ্যতা, অসভ্য, অভদ্রতা ও অদূরদর্শিতার দায় চাপাতে চাই সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সফল সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক সহ প্রাণপ্রিয় নেত্রীর বিশাল কর্মী বাহিনী ও সৎ নেতাদের উপর। এমনভাব করবে, যার জন্য কখনও তারা দায়ী নয়। বিগতদিনে যে সকল রাজনৈতিক নেতা ইউরোপের মাঠে বড় রাজনৈতিক দলের কর্ণধার সেজে দীর্ঘ দিনের আদর্শিক কর্মী বাহিনীকে বাদ দিয়ে দলের ভিতরে ব্যক্তিগত বাহিনী তৈরী করার অপচেষ্টা করেছে আজ তারাই মুখ তুবড়ে পরে গেছে। যার প্রমাণ দেশরত্ন শেখ হাসিনার দেওয়া আজকের ইউরোপের নজরুল-মুজিব কমিটি সকল অপশক্তি ও গণির দেওয়া একের অধিক কমিটি ভেঙে সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগকে পূর্ণতায় রুপ দেওয়া রাজনীতির মাঠে বিদ্ধমান। ধন্যবাদ সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের অভিভাবক সফল সভাপতি ও সাধারন সম্পাদককে আপনাদের সুদৃঢ় ও সৎ নেতৃত্বগুণে ইউরোপে অচলায়তন রাজনীতির থেকে মুক্তি আমাদের মুক্তি দেওয়াতে। আপনারা এগিয়ে যান, দোয়া ও ভালবাসা অফুরাণ।

সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের বর্তমান সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক যারা সর্বদা নেত্রীর আশীর্বাদ নিয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পুরোনে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। আর জার্মানি তথা আমার আয়ারল্যান্ডেও হাইব্রিডরা তাদের নিয়ে দিনেরপর দিন মিথ্যাচার করে যাচ্ছেন। এমনকি বড় দুঃখের বিষয় হচ্ছে আমাদের সাইদুর ভাই আয়ারল্যান্ড আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি বর্তমানে আহবায়ক কমিটির সদস্য। সে বর্তমানে অসুস্থ রোগী গতকাল আল্লাহর রহমতে অপারেশন সফল হয়েছে যে কিনা আওয়ামী লীগের জন্য নিঃস্বার্থ কর্মী ও নেতা। এই সাইদুর ভাই তৎকালীন জামাত শিবির বিএনপি জোট ক্ষমতায় থাকাকালীন সময়ে ছাত্রলীগ করে এসেছে ও সাহসের সাথে ঐসকল জিয়া ও খালেদা গংদের অপশক্তির মোকাবেলা করেছে। কখন জানেন? যখন সারাদেশে বিএনপির ডিপো ছিল, যখন স্বাধীনতার বিরোধীরা প্রস্রাব করে দিত আর আমরা সেই প্রস্রাবে ভেসে যেতাম। আর এখন দেখছি বয়স দুইদিন সেও নাকি ত্যাগি মুজিবসেনা, সেই সাথে অতি বিল্পবী। ছি: ছি: কিসের আওয়ামী লীগ আপনারা? কোন গ্রহে বসবাস করেন, আর এত চুলকানি কেন? অতি বিপ্লবীদের উদ্যেশ্য করে একটা কথা না বললেই নয়, মনে রাখা উচিৎ অতি লোভে তাতি নষ্ট। যারা সাইদুর ভাইয়ের অসুস্থতার খবর পেয়ে ফেসবুকে আনন্দ আর উল্লাস করে পোষ্ট দিয়েছেন তাদেরকে বলে রাখি, আল্লাহ না করুক আপনিও একদিন অসুস্থ ও মরতে পারেন তাই দয়াকরে এমন নোংরামি করবেন না। নোংরামির একটা সীমারেখা আছে।

যাইহোক, রাজনীতি মুক্তমনা মানুষের জন্য! কোন আত্ম অহংকারী দাম্ভিকতাপূর্ণ মানুষিক বিকার গ্রস্থদের জন্য নয়। রাজনৈতিক বিরুদ্ধ মতবাদকে রাজনীতি দিয়ে মোকাবেলা করা রাজনীতিরই ধর্ম, মিথ্যাচার, পেশী শক্তি বা অশ্রাব্য ভাষা দিয়ে নয়, রাজনৈতিক ভাষাই প্রযোজ্য। আজকের রাজনীতির মাঠে আপনাদের মতো কিছু রাজনীতির নামধারী অর্বাচীন নিয়মতান্ত্রিক রাজনীতি না করে, ব্যক্তি স্বার্থ চরিতার্থ করার জন্যে নিয়ম কানুনকে দুপায়ে মাড়িয়ে যা ইচ্ছা তাই করছেন। যা দেশ, দল, নিজের জন্যেও ভালো ফল কোন কালেও বয়ে আনার ইতিহাস নেই। রাজনীতিতে যারা মনে করেন ফার্ষ্ট বেঞ্চের ছাত্র ছিলেন, ইতি মধ্যেই লাষ্ট বেঞ্চে বসে আছেন। আর দলীয় সৎ ও পরীক্ষিত নেতাকর্মীদের না জেনে, না শুনে ফেসবুকে বিভিন্নভাবে হেয় প্রতিপন্ন করছেন বা দোষারোপ করছেন এটা জামাত আর বিএনপির লোকজন ছাড়া করতে পারেনা আর সেটাই প্রমাণিত করলেন। সেই সব হতাশা গ্রস্থ নেতৃত্বকে সবিনয়ে বলতে চাই দয়াকরে অন্যের দোষ না খুঁজে নিজের ভুল গুলিকে খুঁজুন তাতে নিজেরই লাভ হবে।

পরিশেষে: রাজনীতি ও সমাজ নীতিতে বা মানব সভ্যতায় আমি দৃঢ়ভাবে একটি কথা বিশ্বাস করি, অন্যজন আমার সাথে ভালো আচরণ করবে কিনা, সেটা আমার দায়িত্বে পরে না, আমার দায়িত্ব তার সাথে আমি ভালো আচরণ করলাম কিনা। সমাজ জীবনে এই শিক্ষা যদি শতভাগ আমরা গ্রহণ করতে পারতাম, শতভাগ মানুষ তাহলে নিশ্চই রাজনীতি, সমাজনীতি, মানব সভ্যতা পূর্ণতায় ভরে যেতো। ধ্বংস হয়ে যেত অমানুষ জানোয়ারদের লোভের সংসার। সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগ চিরজীবী হোক। জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু।।
লেখক: ইকবাল আহমেদ লিটন

সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও সদস্য সচিব, আয়ারল্যান্ড আওয়ামী লীগ

নিউজটি শেয়ার করুন

এই জাতীয় আরো খবর
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Maintained By Ka Kha IT