1. ph.jayed@gmail.com : akothadesk42 :
  2. admin@amaderkatha24.com : kamader42 :
রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ০৬:৩০ অপরাহ্ন

সপরিবারে আত্মহত্যার আবেদন

আমাদের কথা ডেস্ক
  • আপডেট : সোমবার, ২৩ ডিসেম্বর, ২০১৯

নিউজ ডেস্ক: ভারতের ত্রিপুরায় এনআরসির প্রতিবাদ করার অভিযোগে এক সরকারি কর্মকর্তার বেতন বন্ধ করে দিয়েছে মোদি সরকার।

শুধু বেন বন্ধই নয়, তাকে অন্যত্র বদলিও করে দেয়া হয়েছে। গত অক্টোবর থেকে পরিবার পরিজন নিদারুন অর্থকষ্টে ভোগছেন খাদ্য দফতরের অ্যাকাউন্ট্যান্ট ব্রজলাল দেববর্মা। খবর আজকালের।

এমতাবস্থায় ত্রিপুরার এক ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে দরখাস্ত দিয়ে বিষ সরবরাহের আবেদন জানালেন তিনি। ব্রজলাল দেববর্মার ইংরেজিতে টাইপ করা আবেগঘন ওই দরখাস্ত সামাজিক মাধ্যমে ফাঁস হতেই তুমুল চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

ব্রজলাল এখন ধলাই জেলার লংতরাইভ্যালি মহকুমা শাসকের অফিসে কর্মরত। তিনি দক্ষিণ জেলার বিলোনিয়া এসডিএম অফিসের কর্মকর্তা ছিলেন।

রাজ্যে এনআরসি বিরোধী আন্দোলনে ব্রজলাল সক্রিয়ভাবে অংশ নিয়েছেন বলে খাদ্য বিভাগে অভিযোগ জমা পড়ে। তার পরই বদলি করে তার বেতন বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

‌‌

২১ ডিসেম্বর ম্যাজিস্ট্রেটকে লেখা চিঠিতে তিনি লিখেছেন,‌ মহাশয়, আমি এবং আমার স্ত্রী বারবার আপনাকে আমার বেতন মিটিয়ে দেয়ার অনুরোধ করেছি। কিন্তু কাজ হয়নি। টাকা নেই, তাই পরিবারের সদস্যদের নিয়ে প্রয়োজনীয় খাদ্য এবং ওষুধের অভাবে কঠিন সময় কাটাচ্ছি।
এই পরিস্থিতিতে আমার অনুরোধ, আপনি দয়া করে আমাকে বিষ সরবরাহ করে বাধিত করবেন, যাতে আমি সপরিবার বিষ খেয়ে মরতে পারি।’‌

ব্রজলাল এই চিঠির কপি পাঠিয়েছেন রাজ্যের মুখ্য সচিব, খাদ্য কর্মকর্তা এবং ধলাই জেলা প্রশাসককে। এ বিষয়ে বিলোনিয়ার মহকুমা প্রশাসক মানিকলাল দাস জানান, ব্রজলাল দেববর্মার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ ছিল।

১৯ আগস্ট তাকে বিলোনিয়া থেকে লংতরাইভ্যালি বদলি করা হয়। কিন্তু লংতরাইভ্যালি এসডিএমের কাছ থেকে ব্রজলালের ‘‌ওয়ার্কিং রিপোর্ট’‌ না আসায় অক্টোবর মাস থেকে তার বেতন বন্ধ রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই জাতীয় আরো খবর
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Maintained By Ka Kha IT