1. ph.jayed@gmail.com : akothadesk42 :
  2. admin@amaderkatha24.com : kamader42 :
সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০৭:১৭ পূর্বাহ্ন

বিপুল পরিমাণ নকল ওষুধ ও ক্রিমসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার

আমাদের কথা ডেস্ক
  • আপডেট : রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১

নিউজ ডেস্ক: উৎপাদন নিষিদ্ধ দেশি-বিদেশি নামি দামি ব্র্যান্ডের বিপুল পরিমাণ নকল ওষুধ ও ক্রিমসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। গতকাল শনিবার ঢাকার কোতয়ালি থানার মিটফোর্ড এলাকার বিভিন্ন ওষুধের দোকানে অভিযান পরিচালনা করে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন-ফয়সাল আহমেদ, সুমন চন্দ্র মল্লিক ও মো. লিটন গাজী।

পুলিশ জানায়, ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা (ডিবি) লালবাগ বিভাগ ও ওষুধ অধিদপ্তর-এর যৌথ অভিযানে ১০০ পিস i-pill, ১৬০ পিস Super Gold Kosturi, ৩ হাজার পিস NAPROXEN PLUS-500+20mg, ৩৫০ পিস BETNOVATE-C, 20mg, এক হাজার পিস Protobit-20mg, ১১৫ বক্স ENO, ৪শ’ পিস SANAGRA-100, এক হাজার ৫০০ পিস Periactin, ও ক্রীম: ১১০টি MOOV, ৩০টি Ring Guard, ৫শ’ কৌটা Whitfield, ২৫০টি NIX Rubbing Balm, ৩০০টি Vix Cold Plus, ২০ কৌটা vaporub ও গ্যাকোজিমা ৪২০ কৌটা উদ্ধার করা হয়।

আজ রোববার ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান যুগ্ম পুলিশ কমিশনার (অ্যাডমিন অ্যান্ড ডিবি-দক্ষিণ) মো. মাহবুব আলম। তিনি বলেন, কতিপয় অসাধু ব্যবসায়ী রাজধানীর মিটফোর্ডের পাইকারী ওষুধ মার্কেটের বিভিন্ন দোকানে নিষিদ্ধ ও জীবন রক্ষাকারী দেশি-বিদেশি ব্র্যান্ডের নকল ওষুধ ও ক্রিম বিক্রয় করছে বলে তথ্য পায় গোয়েন্দা লালবাগ বিভাগ।

এমন তথ্যের ভিত্তিতে ওষুধ অধিদপ্তরের সহায়তায় মিটফোর্ডের সুরেশ্বরী মেডিসিন প্লাজার নিচতলার মেডিসিন ওয়ার্ল্ড ও অলোকনাথ ড্রাগ হাউস এবং হাজী রানি মেডিসিন মার্কেটের নিচতলায় রাফসান ফার্মেসিতে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

তিনি আরও বলেন, রাজধানীর মিটফোর্ড মার্কেটটি ওষুধের পাইকারী বাজার হওয়ায় নকল ওষুধ উৎপাদন ও বাজারজাতকারী চক্র সমগ্র দেশব্যাপী নকল ওষুধ ছড়িয়ে দিতে মিটফোর্ড ওষুধ মার্কেটকে ক্যামোফ্লাজ হিসেবে ব্যবহার করে আসছে। গ্রেপ্তারকৃত আসামিরা মিটফোর্ড মার্কেটের পাইকারী ব্যবসায়ী হিসেবে সমগ্র দেশব্যাপী নকল ওষুধ ছড়িয়ে দিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে।

ডিবির যুগ্ম পুলিশ কমিশনার বলেন, গ্রেপ্তারকৃতরা অধিক লাভের আশায় এসব দেশি ও বিদেশি নামি দামি ব্র্যান্ডের ওষুধ ও ক্রিম তাদের সহযোগীদের নিকট হতে সংগ্রহ করে মিটফোর্ড এলাকায় বাজারজাত করে আসছিল। নকল ওষুধ প্রতিরোধে জনগণকে সচেতন হতে হবে। ওষুধ কেনার আগে সেটি রেজিস্টার্ড কিনা তা দেখতে হবে।

নকল ওষুধ উৎপাদন, মজুদ ও বাজারজাতকারীদের শনাক্ত করে তাদেরকে গ্রেপ্তার অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা। তিনি বলেন, গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে কোতয়ালী থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

গোয়েন্দা লালবাগ বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মো. রাজীব আল মাসুদ নির্দেশনায় কোতয়ালী জোনাল টিমের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ সাইফুর রহমান আজাদের নেতৃত্বে ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক এটিএম কিবরিয়ার খার এবং ড্রাগ সুপার মোহাম্মদ মওদুদ আহমেদগণের সমন্বয়ে যৌথভাবে এ অভিযানটি পরিচালিত হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই জাতীয় আরো খবর
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Maintained By Ka Kha IT