1. ph.jayed@gmail.com : akothadesk42 :
  2. admin@amaderkatha24.com : kamader42 :
বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ১২:৫২ অপরাহ্ন

ফ্রান্সে কাজ করছে না কনট্যাক্ট ট্রেসিং অ্যাপ

আমাদের কথা ডেস্ক
  • আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২৫ জুন, ২০২০

নিউজ ডেস্ক: শুধু শুধু মোবাইলের স্টোরেজ আর ডাটা খরচ। কোনো কাজই করছে না সরকারি করোনা শনাক্তকরণ কনট্যাক্ট ট্রেসিং অ্যাপ ‘স্টপকোভিড’।

ফলে বিরক্ত হয়ে অ্যান্ড্রয়েড ফোন থেকে অ্যাপটি ডিলিট করে ফেলেছেন ব্যবহারকারীরা। এখন পর্যন্ত ৪ লাখ ৬০ হাজার জন অ্যাপটি ডিলিট করে ফেলেছেন।

করোনা শনাক্তে সরকারের এ ব্যর্থতার কথা স্বীকার করে নিয়েছে দেশটির সরকার। বুধবার সরকারের ডিজিটালমন্ত্রী সেডরিক ও বলেন, উদ্বোধনের থেকে গত ৩ সপ্তাহে ১৮ লাখ বার ডাউনলোড হয়েছে। এর মধ্যে ৪ লাখ ৬০ হাজার জনই এটা আনইনস্টল করেছেন। খবর দ্য গার্ডিয়ানের।

করোনাভাইরাস মহামারী সামাল দিতে চলতি মাসের শুরুর দিকে (২ জুন) কনট্যাক্ট ট্রেসিং অ্যাপটি উদ্বোধন করা হয়।

এর সহায়তায় কোনো ব্যক্তি কোভিড-১৯ আক্রান্ত কারও সংস্পর্শে বা কাছাকাছি গিয়েছেন কিনা তা জানা সম্ভব হবে বলে মনে করা হচ্ছিল। কিন্তু এক্ষেত্রে পুরোই ব্যর্থ হয়েছে অ্যাপটি।

গত ৩ সপ্তাহে মাত্র ১৪ জনকে করোনা রোগীর ব্যাপারে অ্যালার্ট দিয়েছে ‘স্টপকোভিড’। আর মাত্র ৬৮ জন মানুষকে জানিয়েছে যে, তারা করোনা পজিটিভ হয়েছে।

বিষয়টি স্বীকার করে নিয়েছেন সরকারের ডিজিটালমন্ত্রী সেডরিক ও।

বুধবার এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘আমাকে স্বীকার করতেই হচ্ছে, নোটিফিকেশনের সংখ্যা স্বল্পতা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। মাত্র ১৪ জনের অ্যালার্ট এসেছে। এটা নিতান্তই কম। এটা আমাকে অবাক করেছে।’

করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাব নজরদারি করতে এবং ধীরে ধীরে অর্থনীতির চাকা সচল করতে কনট্যাক্ট ট্রেসিং অ্যাপের দিকে ঝুঁকছে বিশ্বের অসংখ্য দেশ। মূলত চীন ও দক্ষিণ কোরিয়াই পথ দেখায়।

ব্লুটুথ প্রযুক্তিনির্ভর এ ধরনের অ্যাপের মাধ্যমে সহজেই জানা সম্ভব, কেউ করোনাভাইরাস রোগীর সংস্পর্শে এসেছেন কিনা এবং যাদের সংস্পর্শে আগে এসেছেন, তাদের মধ্যে নতুন করে কারও করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে কিনা। যুক্তরাষ্ট্র ও জার্মানির দেখাদেখি অ্যাপ চালু করে ফ্রান্সও। কিন্তু আসল কাজের কাজ কিছুই হয়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই জাতীয় আরো খবর
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Maintained By Ka Kha IT