1. ph.jayed@gmail.com : akothadesk42 :
  2. admin@amaderkatha24.com : kamader42 :
বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ০৬:৩৭ পূর্বাহ্ন

ফরাসি নারী নির্মাতার ইতিহাস

আমাদের কথা ডেস্ক
  • আপডেট : রবিবার, ১৮ জুলাই, ২০২১

নিউজ ডেস্ক: কান নিয়ে ভবিষ্যদ্বাণী করা বোকামি! কোনো পূর্বাভাসই শেষ পর্যন্ত ধোপে টেকে না। সব অনুমান সীমাবদ্ধ থেকে যায় কাগজে-কলমে। কান চলচ্চিত্র উৎসবের সর্বোচ্চ পুরস্কার স্বর্ণ পাম নিয়েও আগাম কিছু বলা যায় না। কানের ইতিহাসে দ্বিতীয় কোনো নারী পরিচালক স্বর্ণ পাম জিতলেন। উৎসবের ৭৪তম আসরের সর্বোচ্চ পুরস্কার স্বর্ণ পাম জিতলো ফরাসি নারী নির্মাতা জুলিয়া দুকুরনোর ‘টাইটেন’। তার হাতে এই সম্মান তুলে দেন এবারের মূল প্রতিযোগিতা বিভাগের বিচারকদের প্রধান আমেরিকান কৃষ্ণাঙ্গ পরিচালক স্পাইক লি।

পালে দে ফেস্টিভাল ভবনের গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে শনিবার (১৭ জুলাই) পুরস্কার বিতরণী পর্বের শুরুতেই ভুল করে ‘টাইটন’কে স্বর্ণ পাম জয়ী ঘোষণা করেন স্পাইক লি। মুহূর্তেই তিনি নিজের কথা ফিরিয়ে নেন। তবে শেষ পর্যন্ত ‘টাইটেন’ই জিতলো। এরআগে ১৯৯৩ সালে নিউজিল্যান্ডের জেন ক্যাম্পিয়ন ‘দ্য পিয়ানো’ ছবির মাধ্যমে এই স্বীকৃতি ঘরে তোলেন। গতকাল সন্ধ্যা ৭টা ২৫ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় রাত ১১টা ২৫) পালে দে ফেস্তিভাল ভবনের গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে বসে কানের জমকালো সমাপনী আসর।

এই আয়োজনে ঘোষণা করা হয় স্বর্ণপাম জয়ী ছবির নাম। এর মধ্য দিয়ে কান চলচ্চিত্র উৎসবের ৭৪তম আসরের পর্দা নামলো। এদিকে কান চলচ্চিত্র উৎসবের ৭৪তম আসরে সেরা স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের পুরস্কার জিতেছে ‘অল দ্য ক্রোস ইন দ্য ওয়ার্ল্ড’। এতে দেখানো হয়েছে, ১৮ বছরের স্কুলছাত্রী শনেন এক রাতে প্রাপ্তবয়স্কদের রোমাঞ্চকর জগতে ঢুকে পড়ে। ছোট দৈর্ঘ্যের ছবিটি পরিচালনা করেছেন হংকংয়ের ই ট্যাঙ। তাকে দেওয়া হয়েছে স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের স্বর্ণ পাম। পুরস্কার তুলে দেন স্বল্পদৈর্ঘ্য ও সিনেফঁদাসো বিভাগের বিচারক সামে আলা ও মুনিয়া মেদুর। স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র বিভাগে স্পেশাল মেনশন পেয়েছে নারী নির্মাতা জেসমিন তেনুচ্চির ‘অগাস্ট স্কাই’।

সেরা অভিনেতার পুরস্কার জিতলেন ক্যালেব লান্ড্রি জোন্স। অস্ট্রেলিয়ার জাস্টিন কারজেল পরিচালিত ‘নিট্রাম’ ছবিতে নাম ভূমিকায় দুর্দান্ত অভিনয়ের সুবাদে এই স্বীকৃতি পেলেন তিনি। তার হাতে পুরস্কার তুলে দেন ফরাসি অভিনেত্রী আদেল এক্সাকুপুলোস। যৌথভাবে জুরি প্রাইজ জিতলো অ্যাপিচ্যাটপঙ বিরাসেতাকুল পরিচালিত ‘মেমোরিয়া’ এবং নাদাভ লাপিডের “আহেদ’স নি”। দুই দেশের দুই পরিচালকের হাতে পুরস্কারটি তুলে দেন ব্রিটিশ অভিনেত্রী রোজামুন্ড পাইক।

শনিবার (১৭ জুলাই) সন্ধ্যা ৭টা ২৫ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় রাত ১১টা ২৫) পালে দে ফেস্তিভাল ভবনের গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে বসে কানের জমকালো সমাপনী আসর। অনুষ্ঠান শুরুর আগে লালগালিচায় আলোকচিত্রীদের সামনে দাঁড়িয়েছেন তারকারা। গত ৬ জুলাই শুরু হওয়া এই মহাযজ্ঞের মূল প্রতিযোগিতা বিভাগে থাকা ২৪টি চলচ্চিত্রের মধ্যে দর্শক-সমালোচকদের প্রশংসা কুড়িয়েছে বেশিরভাগই।

এ তালিকায় আছে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়েস অ্যান্ডারসনের ‘দ্য ফ্রেঞ্চ ডিসপাচ’, শন বেকার পরিচালিত ‘রেড রকেট’ ও শন পেনের ‘ফ্ল্যাগ ডে’, চাদের মোহাম্মদ সালাহ হারুনের ‘লিঙ্গুই, দ্য স্যাক্রেড বন্ডস’, রাশিয়ার কিরিল সেরেব্রেনিকোভের “পেত্রোভ’স ফ্লু”, নরওয়ের ইওয়াকিম ট্রিয়ারের ‘দ্য ওর্স্ট পারসন ইন দ্য ওয়ার্ল্ড’, ইসরায়েলের নাদাভ লাপিডের “আহেদ’স নি”, ইতালির ন্যানি মোরেত্তির ‘থ্রি ফ্লোরস’ এবং নেদারল্যান্ডসের পল ভারহোভেনের ‘বেনেদেত্তা’।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই জাতীয় আরো খবর
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Maintained By Ka Kha IT