1. ph.jayed@gmail.com : akothadesk42 :
  2. admin@amaderkatha24.com : kamader42 :
শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০৯:২৮ অপরাহ্ন

প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ পুলিশের বিরুদ্ধে

আমাদের কথা ডেস্ক
  • আপডেট : বুধবার, ১৮ অক্টোবর, ২০২৩

নিউজ ডেস্ক: এক সন্তানের জননী ও প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে ঢাকা মহানগর পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মো. মিজানুর রহমান ফারুকের (৫৪) বিরুদ্ধে বরিশালের আদালতে মামলা করা হয়েছে। গতকাল সোমবার বিকেলে বরিশাল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে নালিশি মামলা করেন ভুক্তভোগী প্রবাসীর স্ত্রী। ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. ইয়ারব হোসেন মামলাটি আমলে নিয়ে বিচারবিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

অভিযুক্ত মিজানুর রহমান ফারুক ঢাকা মহানগর পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) হিসেবে কর্মরত। তিনি বরিশাল নগরীর ২২ নম্বর ওয়ার্ড এআর খান সড়কের বাসিন্দা।

মামলার আইনজীবী অ্যাডভোকেট আফজালুল করিম বলেন, এক পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। বিচার বিভাগীয় তদন্ত দেওয়া হয়েছে।

মামলার বরাত দিয়ে আদালতের বেঞ্চ সহকারী হুমায়ন কবির বলেন, অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তা ভুক্তভোগী নারীর মালয়েশিয়া প্রবাসী স্বামীর বন্ধু। নগরীর এআর খান সড়কে ৯ শতাংশ জমি কিনতে ওই পুলিশ সদস্যের নিকট ৪৫ লাখ টাকা দেন প্রবাসীর স্ত্রী। কিন্তু জমির দলিল না দিয়ে নানা টালবাহানা করেন ওই পুলিশ কর্মকর্তা। এছাড়াও বিভিন্ন সময় প্রবাসীর স্ত্রীকে কুপ্রস্তাব দিতেন।

২০২২ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি প্রবাসীর স্ত্রী নগরীর এআর খান সড়কে ভাইয়ের নির্মাণাধীন ভবনে যান। এ সময় সেখানে পুলিশ সদস্য এসে তাকে জোর করে ধর্ষণ করেন। পরে তিনি অজ্ঞান হয়ে পড়লে প্রবাসীর স্ত্রীর নগ্ন ছবি ও ভিডিও ধারণ করেন ওই পুলিশ সদস্য। ওই ছবি ও ভিডিও স্বামী এবং স্বজনদের কাছে পাঠানো ও ইন্টারনেটে ভাইরাল করার হুমকি দিয়ে ২০২৩ সালের ৭ আগস্ট পর্যন্ত বিভিন্ন সময় তিনি ধর্ষণ করে এসেছেন। এ ঘটনায় ঢাকা মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনারের (প্রোটেকশন বিভাগ) কাছেও লিখিত অভিযোগ দেন ভুক্তভোগী। কিন্তু কোনো বিচার না পেয়ে আদালতের শরণাপন্ন হয়েছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই জাতীয় আরো খবর
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Maintained By Macrosys