1. ph.jayed@gmail.com : akothadesk42 :
  2. admin@amaderkatha24.com : kamader42 :
মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ০৩:২৩ অপরাহ্ন

পুত্র সন্তানের আশায় ২৬ দিনের কন্যা সন্তানকে আছড়ে মারলো বাবা

আমাদের কথা ডেস্ক
  • আপডেট : রবিবার, ২২ নভেম্বর, ২০২০

নিউজ ডেস্ক: নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে পুত্র সন্তানের আশায় মেয়ে সন্তান জন্ম হওয়ার ক্ষোভে মায়ের কোল থেকে টেনে নিয়ে মাটিতে আছড়ে ফেলে ২৬ দিনের শিশু কন্যাকে হত্যা করেছে পাষণ্ড পিতা। শনিবার ভোরে উপজেলার ভুলতা ইউনিয়নের পাড়াগাঁও দক্ষিণপাড়া এলাকায় ঘটে এমন নির্মম ঘটনা। নিহত শিশুর মা খাদিজা আক্তার জানান, সে দক্ষিণ পাড়াগাঁও এলাকার হারুন অর রশিদের মেয়ে। ২ বছর আগে পারিবারিকভাবে পার্শ্ববর্তী মুড়াপাড়া ইউনিয়নের হাউলিপাড়া এলাকার মৃত বাবুলের ছেলে কামালের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে কামাল হোসন পরিবার নিয়ে পাড়াগাঁও শ্বশুর বাড়িতে বসবাস করে আসছিল। এরপর স্ত্রী খাদিজা গর্ভবতী হলে কামাল হোসেন তাদের ঔরষে ছেলে সন্তান জন্ম নিবে বলে আশা পোষণ করেন। এদিকে ২৬ দিন পূর্বে একটি কন্যা সন্তানের জন্ম দেয় খাদিজা আক্তার। এরপর থেকেই খাদিজার সাথে অশোভন আচরণ শুরু করে কামাল।

গত ১০ দিন পূর্বে শিশু মীমকে গলাটিপে মেরে ফেলার চেষ্টাও চালায় পিতা কামাল। তার মা বিষয়টি টের পেয়ে গেলে সে দফা মৃত্যুর হাত থেকে বেঁচে যায় শিশু মীম। এদিকে শনিবার ভোরে হঠাৎ শিশুকন্যা মীম কান্না শুরু করলে ক্ষিপ্ত হয়ে মায়ের কোল থেকে কেড়ে নিয়ে ঘরের ভিতর মাটিতে আছড়ে ফেলে দেয় পাষণ্ড কামাল হোসেন।

এতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যুবরণ করে শিশু মীম। শিশুটির মা খাদিজা আক্তার আরো জানান, তার স্বামী আড়াইহাজার থানাধীন ছনপাড়া এলাকায় একটি হোটেলে চাকরি করে। তার ছেলে সন্তান হলে সেখানে জনৈক এক ব্যক্তিকে টাকার বিনিময় বিক্রি করে দেয়ার কথা ছিল সন্তানকে। তার সে স্বপ্ন পূরণ না হওয়াতেই সে ক্ষিপ্ত হয়ে শিশু মীমকে হত্যা করেছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহত শিশুর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। এব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মাহমুদুল হাসান বলেন, শিশুটিকে হত্যাকারী ঘাতক পিতাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। এছাড়া এ ঘটনায় রূপগঞ্জ থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান ওসি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই জাতীয় আরো খবর
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Maintained By Ka Kha IT