প্রেমের টানে হাজার মাইল পাড়ি দিয়ে এসে ফরিদপুরের বউ হলেন মার্কিন নাগরিক শ্যারুন খাঁন (৪০)। যুক্তরাষ্ট্রের নারীকে বিয়ের ঘটনায় এলাকায় সৃষ্টি হয়েছে আনন্দবন্যা।

 পেশায় ব্যাংকার এ নারী ১০ এপ্রিল মো. আশরাফ উদ্দিন সিংকু (২৬) নামের যুবককে বিয়ে করেন।

এদিকে নিজেকে নিয়ে লোকজনের আগ্রহ বেশ উপভোগ করছেন শ্যারুন। এলাকার সকলকে আপন করে সবার খোঁজ-খবরও নিচ্ছেন তিনি। ভাঙা ভাঙা বাংলায় তিনি নিজের মনোভাবও প্রকাশ করছেন।

ফরিদপুরের সদর উপজেলার কানাইপুর ইউনিয়নের ঝাউখোলা গ্রামের সন্তান আশরাফ উদ্দিন সিংকু। তিনি ঢাকার কবি নজরুল কলেজের মাস্টার্স শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী। পরিবারের সন্তানদের মধ্যে সবার বড় তিনি। তার আরও দুই বোন রয়েছে।

সিংকুর বাবা পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের গাড়ি চালক। তিনি ঢাকায় বসবাস করছেন। তবে তার পরিবারের সদস্যরা ফরিদপুর নদী গবেষণা ইনস্টিটিউটের স্টাফ কোয়ার্টারে থাকেন।

সিংকু জানান, ৬ মাস আগে ফেসবুকের মাধ্যমে ব্যাংকার শ্যারুনের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। কথা বলার এক পর্যায়ে ওই নারী সিংকুকে বিয়ের প্রস্তাব দেন। এ ধারাবাহিকতায় গত ৬ এপ্রিল শ্যারুন বাংলাদেশে আসেন। গত ১০ এপ্রিল ঢাকায় মুসলিম রীতিতে তাদের বিয়ে হয়। দুজনই মুসলিম হওয়াতে বিয়েতে কোনো জটিলতা হয়নি।


 

সিংকু আরও বলেন, ‘আমার ও আমার স্ত্রীর বয়সের ব্যবধান থাকলেও আমরা দুজন দুজনাকে পেয়ে খুশি। আমরা সবার দোয়া চাই।’

হাজার মাইল পাড়ি দিয়ে জীবনসঙ্গী পাওয়ার ঘটনায় উচ্ছ্বসিত শ্যারুন খাঁন বলেন, ‘বাংলাদেশে এসে আমার খুবই ভালো লাগছে। এছাড়া আমার স্বামী ও তার পরিবার এবং এদেশের মানুষসহ গোটা পরিবেশ খুবই ভালো লেগেছে। আশা করছি; ২১ এপ্রিল যুক্তরাষ্ট্রে চলে যাওয়ার পর দ্রুত আবার ফিরে আসবো। আমি বাংলাদেশ, বাংলা ও এদেশের মানুষের প্রেমে পড়েছি।’

 বিদেশিনি বউ পেয়ে খুশি সিংকুর মা নার্গিস আক্তার। তিনি বলেন, ‘আমি বৌ পেয়ে খুব খুশি। আমার ছেলেকে দেশে বিয়ে দিলেও এতো ভালো বউ হয়তো পেতাম না। নতুন বউ যখন আমাকে ‘আম্মু’ বলে ডাকে; তখন গর্ব অনুভব করি।’

সিংকুর নিজ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফকির বেলায়েত হোসেন বলেন, ‘আমেরিকান কন্যা প্রেমের টানে ফরিদপুরে এসেছেন। তাদের ইতোমধ্যে বিয়ে হয়েছে। এলাকার মানুষ মেয়েটিকে দেখতে ভীড় জমাচ্ছেন।’  স্থানীয়রা এখন দল বেধে সিংকুর বিদেশিনি বউ দেখতে ভীড় জমাচ্ছেন। 

You Might Also Like

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email address will not be published. Required fields are marked (*).