ইলিয়াম শেকসপিয়ার এর বিখ্যাত রচনার প্রেমকাহিনী রোমিও জুলিয়েট। ভালোবাসার এক দৃষ্টান্ত হিসেবে প্রতিষ্ঠিত। যারা দুটি প্রতিদ্বন্দী পরিবারের ছিল। তারা দুজনই একে অপরকে ভালোবেসে ফেলে। যার পরিণতি হয় বিচ্ছেদ ।

একটি আনুষ্ঠানে তারা একজন আরেকজনকে ভালোবেসে ফেলে। তাদের পরিবার তাদের এ ভালোবাসার শুভ পরিণয় হতে দেয়নী ফলে দুজনেই আত্মহুতিদেয় একই ছুড়িকাঘাতে,আর এইভাবেই উইলিয়াম শেকসপিয়ার তার চিরঞ্জীব প্রেমকাহিনী “রোমিও জুলিয়েট” তৈরী করেন। যার সত্যিকারের স্মৃতিস্তম্ভ ইতালির ভেরোনা শহরে অবস্থিত। যেখানে রয়েছে জুলিয়েটের একটি ভাষ্কর্য এবং একটি মিউজিয়াম। যা বিভিন্নদেশের পর্যটকদের আকর্ষন করে।

জুলিয়েটের বাসভবনের দ্বারে অনেকে আবার চিরিকুটে নাম লিখে রেখে যান, তাদের অজানা ভালোবাসার মানুষের ভালোবাসা কুড়াতে। অপরূপ চোখ ধাঁধাঁলো শৈল্পিক স্থাপনা আরো বেশি আকৃষ্ট করে দেশ-বিদেশের দর্শনার্থীদের। বিরল এ ভালোবাসার রোমিও জুলিয়েটের বাড়িটিতে কৌতুহলি ও প্রেম পিয়াসী দর্শনার্থীরা ভীড় করে প্রতিনিয়ত। তাদের ধারনা প্রেম অবিনশ্বর যুগযুগ ধরে জাগ্রত থাকবে এভাবেই ।

You Might Also Like

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email address will not be published. Required fields are marked (*).